ঢাকা, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

ডানশরিক সন্ধানে আ.লীগ – বিএনপি

মাহমুদুল আলম
প্রকাশিত: ২১ জুলাই ২০১৭ শুক্রবার, ১২:০৬ পিএম
ডানশরিক সন্ধানে আ.লীগ – বিএনপি

একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্রমেই বড় আকারের জোট করার প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে। যে কারণে প্রধান দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সঙ্গে অন্দরমহলে ছোট দলগুলোর চলছে দরকষাকষি।


ছোট দলগুলোর বেশিরভাগই ডানঘরানা। আর বামঘরানা বা প্রগতিশীল দলের সংখ্যা তুলনামূলক অনেক কম। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, ডানঘরানা দলের সংখ্যা বেশি হওয়ায় শরিক সন্ধানে ডানদিকেই ঝুঁকছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। তাঁরা বলছেন, সাধারণত ডানপন্থার মূল আশ্রয়স্থল বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোট, আর বামপন্থার আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোট। তবে বর্তমানে দুই জোটই ডানশরিক বাড়ানোতে বেশি মনোযোগী। এক্ষেত্রে বরং ‘আওয়ামী মুসলিম লীগ’ থেকে ‘মুসলিম’ শব্দটি বাদ দিয়ে ধর্ম নিরপেক্ষ হওয়া আওয়ামী লীগই এগিয়ে বলে মনে করছেন তাঁরা।


এমন মনে করার প্রধান কারণ হিসেবে বিশ্লেষকরা আওয়ামী লীগের হেফাজতসখ্যতাকে দেখছেন। এক্ষেত্রে হেফাজতে ইসলামের দাবি-দাওয়াকে সরকারের নেতৃত্বে থাকা দল আওয়ামী লীগ যেভাবে আমলে নিচ্ছে, তাকেই দলটির হেফাজতসখ্যতার প্রধান লক্ষণ হিসেবে দেখছেন পর্যবেক্ষকরা। বিশেষ করে পাঠ্যপুস্তকে হেফাজতের ১৩ দফার অনুপ্রবেশ ও সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্ট অঙ্গণে ভাস্কর্য প্রতিস্থাপন হয়ে অন্দরে যাওয়াকে অন্দরের দরকষাকষির ফল হিসেবে দেখছেন পর্যবেক্ষকরা।


বিএনপি সম্পর্কে বিশ্লেষকরা বলছেন, দলটি এখনও জামায়াতে ইসলামীর বিষয়ে তাদের অবস্থান স্পষ্ট করেনি। যে কারণে বাম দলগুলোর বিএনপিজোটে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। যে কারণে ডানপন্থী দলগুলোতেই তাদের ঝোঁক অব্যাহত আছে।


রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, জামায়াতে ইসলামীসহ ধর্মাশ্রয়ী দলগুলোর প্রধান আশ্রয়স্থল বিএনপি  হওয়ায় বাম দলগুলো হুটহাট ওই দলের নেতৃত্বাধীন জোটে ঘেঁষতে পারছে না। সেই অর্থে তাদের অনিবার্য ঠিকানা আওয়ামী জোট। এদিকে সংখ্যায় বেশি থাকা ডান দলগুলোর যেকোন জোটে ভেড়ার সুযোগ আছে। এমনকি পরোক্ষভাবে এদের বেশিরভাগকে বাগিয়ে নিচ্ছে আওয়ামী লীগই।


এমন মনে করার কারণ হিসেবে তাঁরা বলছেন, ৫৮ দলের সমন্বয়ে সবচেয়ে বড় জোটের ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় পার্টি। দলের চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের এই জোটকে আওয়ামী জোটের ‘বি’ টিম মনে করছেন তাঁরা। আর এই জোটের অধিকাংশই ডান ঘরানা রাজনৈতি দল।


অর্থ্যাৎ নির্বাচন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের ডানশরিক সন্ধান স্পষ্টতর হতে থাকবে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

 

বাংলা ইনসাইডার/এমএএম

 

 

বিষয়: রাজনীতি