ঢাকা, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

আবার হার্ডলাইনে বিএনপি

তাসনিয়া রহমান
প্রকাশিত: ২০ জুলাই ২০১৭ বৃহস্পতিবার, ১১:৩৫ এএম
আবার হার্ডলাইনে বিএনপি

নির্বাচন নিয়ে আবার হার্ডলাইনে চলে গেছে বিএনপি। লন্ডন থেকে বার্তা এসেছে শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচন নয়—এই মত আবার বিএনপি জোরেসোরেই বলছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া লন্ডনে পৌঁছাতে না পৌঁছাতেই সুর পাল্টাচ্ছে দলটি। কিছুদিন আগেও সহায়ক সরকারের অধীনেই নির্বাচনে যাবে, ইসি পুনর্গঠনের কথা বলে বিএনপি। নিরপেক্ষ সরকার গড়তে একাদশ নির্বাচনে অংশ নিবে বলে জানায় দলটি। কিন্তু গত শনিবার খালেদা জিয়া তার বড় ছেলে তারেক রহমানের কাছে যাওয়ার পর থেকেই দল থেকে আসছে না না কথা।

দলের একাধিক সিনিয়র নেতা বলেন, নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবেন তারা। নতুন সিইসি নুরুল হুদার আওয়ামী সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে প্রচার-প্রচারণা অব্যহত থাকবে। নির্বাচন কমিশনকে চাপে রাখা হবে। তবে মূল আন্দোলন হবে নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার ব্যবস্থা নিয়ে। এই ব্যাপারে কোন ছাড় দেয়া হবেনা। নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার গঠনের দাবিতে প্রয়োজনে রাজপথে কঠোর আন্দোলন হবে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গতকাল খুলনায় দলের জেলা বিএনপির নতুন সদস্য সংগ্রহের অনুষ্ঠানে গিয়ে বলেন, সরকার ও নির্বাচন কমিশনের কথায় একই সুর শুনতে পাচ্ছেন। সরকার যাতে ‘আরেকটি সাজানো নির্বাচন’করতে না পারে, সেজন্য আগামী সংসদ নির্বাচন ‘নির্দলীয় সহায়ক সরকারের অধীনে’ করতে ‘বাধ্য’ করার কথাও বলেছেন তিনি।

এদিকে, বিএনপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করানোর জন্য আওয়ামী লীগও বিভিন্ন কৌশল গ্রহণ করছে। বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানা যায়। গতকাল আইনমন্ত্রী বলেন, ‘তারেক রহমান একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামি। এখন তিনি ফেরারি। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে আইনি প্রক্রিয়া চলছে। ’

কিন্তু বিএনপি যদি শেষ পর্যন্ত হার্ডলাইনে যায়, তাহলে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন আবার অনিশ্চয়তায় পরবে।

বাংলা ইনসাইডার/টিআর

 

 

বিষয়: বিএনপি